পবিত্র কুরআন অবমাননায় করায় করুণ মৃত্যু! এলাকায় তোলপাড়

পবিত্র কুরআন অবমাননায় করায়- দিনাজপুর বিরামপুরে আদিবাসী সাঁওতাল বিশু লাড়কা নামের এক ব্যক্তির করুন মৃত্যু ঘটেছে। এ ঘটনায় এলাকায় ব্যাপক চাঞ্চল্যের সৃষ্টি হয়েছে।

সোমবার সকালে রণগ্রামে কবিরাজি চিকিৎসাধীন অবস্থায় বিশু লাকড়ার মৃত্যু হয়। দুপুরে বিশুর লাশ নিজ বাড়িতে নিয়ে এলে এলাকায় ব্যাপক চাঞ্চল্যের সৃষ্টি হয়।

জানা গেছে, বিরামপুর উপজেলার পলিপ্রয়াগপুর ইউনিয়নের জোতজয়রামপুর গ্রামের এতোয়া লাকড়ার ছেলে বিশু লাকড়া (৫৫) গত শুক্রবার (৫ জানুঃ) গ্রাম সংলগ্ন নদীতে মাছ ধরতে যায়।

এক পর্যায়ে তার হাতের সাথে একটি কোরআন শরীফ উঠে আসে। আরবীতে মুদ্রিত মুসলমানদের মহা পবিত্র গ্রন্থটিকে সম্মান না দেখিয়ে বিশু সেটিকে পা দিয়ে সরিয়ে রেখে বাড়ি চলে আসে।

বাড়ি ফেরার পর বিশুর হাত-পা অবস হতে শুরু করে এবং কিছুক্ষণের মধ্যে তার মুখের কথা ও খাওয়া-দাওয়া বন্ধ হয়ে যায়।

বিশুর বড় ছেলে লক্ষী লাকড়া ও শ্যালক দিলীপ টপ্য জানান, অবচেতন বিশু লাকড়াকে গত তিনদিন ধরে বিভিন্ন স্থানে চিকিৎসা করালেও ক্রমাগত তার শারিরীক অবস্থার অবনতি হতে থাকে।

বিরামপুর উপজেলা চেয়ারম্যান পারভেজ কবীর জানায় , লোকমুখে শুনেছি বিশু লাকড়া পবিত্র গ্রস্থ আল কুরআন অবমাননা করার কারনেই এই অবমৃত্যুর ঘটতে পারে বলে অনেকেই ধারনা করছে ।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *